RSS

Category Archives: পুঁইশাক

পুঁইপাতায় কাচকি ভাজি

উপকরণ : কাচকি মাছ ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, সাদা সরিষা বাটা ১ চা-চামচ, মরিচ ও ধনের গুঁড়া ১ চা-চামচ, হলুদের গুঁড়া পরিমাণমতো, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, জিরার গুঁড়া ১ চা-চামচ, বড় পুঁইপাতা ১০-১২টি, টুথপিক প্রয়োজনমতো, লবণ ও কাঁচা মরিচের কুচি স্বাদমতো, টমেটো কুচি ১টি ও ভাজার জন্য তেল ১ কাপ।

ভাজার মিশ্রণ : কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল-চামচ, ডিম ১টি, চালের গুঁড়া ৩ টেবিল-চামচ, লবণ ও গোলমরিচের গুঁড়া স্বাদমতো। সব মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করতে হবে।

প্রণালি : মাছ পরিষ্কার করে তেল ছাড়া অন্য উপকরণ সব এতে মাখিয়ে ২-৩ মিনিট রাখুন। এবার পুঁইপাতার ভেতর অল্প অল্প মাখানো মাছ ভালো করে ভরে পাতা ভাঁজ করে টুথপিক দিয়ে আটকান। তেল গরম করে ভাজার মিশ্রণে ডুবিয়ে পাতায় আটকানো মাছ মচমচে করে ভেজে তুলুন।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২ অক্টোবর ২০১২

Advertisements
 

পুঁই ডাঁটায় পাঙ্গাশ

যা লাগবে : পুঁই ডাঁটা শাক ১ কেজি, মাছ ৮-১০ টুকরা, তেল ৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া দেড় চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, আলুর টুকরা ১০-১২টি, লবণ স্বাদমতো।

যেভাবে করবেন : হলুদ ও লবণ দিয়ে মাছ ও আলুগুলো ভেজে রাখুন। এখন কড়াইতে তেলে পেঁয়াজ ভেজে সব মশলা ও লবণ দিয়ে কষিয়ে তাতে পুঁই ডাঁটা শাক ঢেলে কষান। এরই মধ্যে চার টুকরা মাছ কাঁটা ফেলে ভেঙে শাকের সঙ্গে কষাতে থাকুন। শাক একটু নরম হয়ে এলে প্রথমে আলু ও পরে বাকি মাছ ও গরম পানি দিয়ে রান্না করুন। সব উপকরণ সিদ্ধ হয়ে তরকারির ঝোল একটু ঘন হয়ে এলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২৮ আগস্ট ২০১২

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন সেপ্টেম্বর 22, 2012 in পাঙ্গাশ মাছ, পুঁইশাক, শাকসবজি

 

পুঁই চিংড়ির পাকোড়া

উপকরণ: লবণ (সিকি চামচ) ও হলুদ (সিকি চামচ) দিয়ে মেখে দুই টেবিল চামচ সরিষার তেল দিয়ে ভেজে রাখা চিংড়ি। সরিষার তেল ২৫০ গ্রাম, পুঁইশাকের বড় বড় পাতা (ভাপিয়ে নেওয়া) ২০-২৫টি। লবণ আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ৪টি, কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল চামচ, ময়দা ২ টেবিল চামচ, চালের গুঁড়া আধা কাপ, পানি ১ কাপ, শুকনা মরিচ ভাঙা ১ চা-চামচ, লেবুর রস দেড় টেবিল চামচ, পেঁয়াজ টুকরা (বড়) ১টি, পোস্তদানা সিকি কাপ বা পরিমাণমতো।

প্রণালি: চিংড়িপাটায় মিহি করে বেটে নিন। ফ্রাইপ্যানে দুই টেবিল চামচ সরিষার তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাজুন। বাদামি রং হয়ে এলে বাটা চিংড়ি মাছ, সিকি চামচ লবণ, কাঁচা মরিচ কুচি দিয়ে নেড়ে আধা টেবিল চামচ লেবুর রস দিয়ে ভাজুন। আধা কাপ পানিতে চালের গুঁড়া ২-৩ ঘণ্টা আগে থেকেই ভিজিয়ে রাখুন। একটি প্লেটে পোস্তদানা ছড়িয়ে রাখুন। চালের গুঁড়ার সঙ্গে ময়দা, কর্নফ্লাওয়ার, বাকি লবণ, এক টেবিল চামচ লেবুর রস ও মরিচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে ঘন ব্যাটার তৈরি করুন। একেকটি পুঁইপাতায় সামান্য চিংড়ি পেস্টের পুর ভরে তা চার ভাঁজ করে মুড়িয়ে নিন। অন্যদিকে ফ্রাইপ্যানে সরষের তেল গরম করুন। পুরভরা পাতা ব্যাটারে চুবিয়ে পোস্তাদানায় গড়িয়ে ডুবোতেলে ভাজুন।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২৪ জুলাই ২০১২

 

বেসনে পুঁইপাতা ফ্রাই

উপকরণ : পুঁইশাকের বড় বড় পাতা ভালো করে ধুয়ে পানি মুছে রাখতে হবে। বেসন ১ কাপ, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, রসুন বাটা আধা চামচ, বেকিং পাউডার সামান্য, বিট লবণ আধা চা-চামচ, পানি পরিমাণমতো এবং তেল ভাজার জন্য।

প্রস্তুত প্রণালি : বিট লবণ ও তেল বাদে বেসনে বাকি সব মসলা একসঙ্গে মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন পরিমাণ মতো পানি দিয়ে। কড়াইয়ে তেল গরম করে পুঁইশাকের পাতা এক একটি করে বেসনে মিশ্রণে ডুবিয়ে ডুবো তেলে মচমচে ভেজে টিস্যু কাপড়ে তুলে রেখে নিজের পছন্দ অনুযায়ী সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৮ জুলাই ২০১২

 

নারকেল দুধে পুঁইশাক

উপকরণ : পুঁইশাক এক কেজি, নারকেল দুধ চার কাপ, ছোট চিংড়ি আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, আদা বাটা এক চা চামচ, হলুদ আধা চা চামচ, মরিচ ১০-১২টি, তেল আধা কাপ, লবণ স্বাদমতো, চিনি অল্প।

প্রণালি : চিংড়ি লবণ, হলুদ দিয়ে মেখে একটু ভাপিয়ে বেটে নিন। পুঁইশাক কচি ডগাসহ পাতা বেছে ধুয়ে নিন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচি বাদামি রং হলে আদা বাটা, হলুদ ও মরিচ দিয়ে একটু কষিয়ে চিংড়ি বাটা দিন। অল্প নারকেল দুধ দিয়ে কষান। শাক দিয়ে লবণ দিন। শাকের পানি শুকিয়ে গেলে নারকেল দুধ দিন। ঝোল মাখা মাখা হলে নামিয়ে নিন। ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১২ সেপ্টেম্বর ২০১১

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 16, 2012 in পুঁইশাক, শাকসবজি

 

পুঁইশাকের ঘণ্ট

উপকরণ: পুঁইশাক আধা কেজি, মসুর ডাল ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ ৪-৫টি (ফালি), রসুন কুচি ৩ কোয়া, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, আস্ত জিরা সামান্য, শুকনো মরিচ ৩-৪টি, লবণ স্বাদমতো, তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি: পুঁইশাক ধুয়ে কেটে ডাঁটা ও পাতা আলাদা করে রাখুন। ডাল ধুয়ে ৩ কাপ পানি, ১ কোয়া রসুন কুচি, কাঁচামরিচ ফালি, হলুদ গুঁড়া ও লবণ দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। ডাল সেদ্ধ হলে তাতে পুঁইয়ের ডাঁটাগুলো দিন। ডাঁটা ও ডাল মাখা মাখা হলে তাতে পুঁইশাকের পাতা ও কাঁচামরিচ দিন। অন্য একটি কড়াইতে তেল, শুকনো মরিচ, পেঁয়াজ, রসুন ও আস্ত জিরা দিয়ে ভাজুন। ভাজা হলে পুঁইশাকসহ ডাল আস্তে আস্তে কড়াইয়ে ঢেলে দিন। কিছুক্ষণ চুলায় রেখে নামিয়ে পরিবেশন করুন পুঁইশাকের ঘণ্ট।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২০ এপ্রিল ২০১০

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 3, 2012 in পুঁইশাক, শাকসবজি

 

পুঁইশাকের চচ্চড়ি

উপকরণ: পুঁইশাক আধা কেজি, চিংড়ি মাছ ২ টেবিল-চামচ, নারকেলবাটা (ইচ্ছা) ১ টেবিল-চামচ, পেঁয়াজবাটা ১ টেবিল-চামচ, রসুনকুচি ১ চা-চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ৩টি, লবণ স্বাদমতো, তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি: পুঁইশাক ধুয়ে টুকরো করে নিতে হবে। কড়াইয়ে তেল দিয়ে চিংড়ি মাছ ভেজে পেঁয়াজবাটা, রসুনকুচি, নারকেলবাটা, হলুদগুঁড়া, কাঁচা মরিচ ও লবণ দিয়ে একটু কষিয়ে নিতে হবে। পুঁইশাক দিয়ে ভেজে আধা কাপ পানি দিতে হবে। সব মসলা মিশে শাক সেদ্ধ হলে নামিয়ে ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করা যায়।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৫ মার্চ ২০১১

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন ডিসেম্বর 28, 2011 in পুঁইশাক

 
 
%d bloggers like this: