RSS

Category Archives: কই মাছ

তেল কই

উপকরণ : কই মাছ ৪টি, সরিষার তেল ৫-৬ চা-চামচ পেঁয়াজবাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন ও কাঁচা মরিচ (টেলে বেটে নেওয়া) ১ চা-চামচ, জিরাবাটা আধা চা-চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি।

প্রণালি : প্রথমে মাছ কেটে ভালো করে পানি ঝরাতে হবে। তারপর লেবুর রস, লবণ, সামান্য হলুদ ও মরিচগুঁড়া এবং ১ টেবিল চামচ সরিষার তেল দিয়ে মাখিয়ে ১০ মিনিট মেরিনেট করে রাখতে হবে। ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে তাতে কই মাছগুলো ভেজে নিন। এবার বাকি তেল ও মসলা দিয়ে ভুনে ১ কাপ পানি দিয়ে তাতে ভাজা মাছগুলো দিতে হবে। কিছুক্ষণ পর একবার মাছ উল্টে দিয়ে ধনে পাতা ও কাঁচা মরিচ ফালি দিতে হবে। তেল ওপরে উঠে এলে নামিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার তেল কই।

তেল কইরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৫ আগস্ট ২০১৪
PALO

Advertisements
 
১ টি মন্তব্য

Posted by চালু করুন সেপ্টেম্বর 10, 2014 in কই মাছ, মাছ

 

নারকেলের দুধে কই

উপকরণ : বড় কই মাছ ৬টি, নারকেলের দুধ দেড় কাপ, পেঁয়াজকুচি ১ কাপ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল-চামচ, আদাবাটা ১ চা-চামচ, রসুনবাটা ১ চা-চামচ, জিরাবাটা ১ চা-চামচ, মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেল ১ কাপ, টমেটো সস ২ টেবিল-চামচ, ধনেপাতাকুচি ২ টেবিল-চামচ।

প্রণালি : মাছ পরিষ্কার করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে হলুদ, লবণ মাখিয়ে গরম তেলে ভেজে উঠিয়ে রাখতে হবে। ওই তেলে পেঁয়াজ ঘিয়ে রং করে ভেজে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে কষিয়ে নিতে হবে। এবার লবণ, টমেটো সস ও মাছ দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে নারকেলের দুধ দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। ঝোল কমে তেলের ওপর এলে কাঁচা মরিচ, ধনেপাতাকুচি দিয়ে নামাতে হবে।

নারকেলের দুধে কইরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২৭ মে ২০১৪
PALO

 

কই মাছের গঙ্গা যমুনা

এটি একটি মোগলাই খাবার। এই মাছের নামকরণ করা হয়েছে দুটি নদীর নামে, গঙ্গা আর যমুনা। কারণ, এই মাছ তৈরি করতে লাগবে দুই রকমের সস বা গ্রেভি। একটি সস সরষে দিয়ে আর অন্যটি হবে তেঁতুল দিয়ে। ওপরের অংশটি হবে হলদে আর নিচের অংশটি হবে কালচে।

উপকরণ : ৪টি কই মাছ, এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ তেল (মাছ ভাজার জন্য)।

গঙ্গা সস
২ টেবিল চামচ হলুদ সরষেদানা বাটা, ৫-৬টি কাঁচা মরিচ চিরে নেওয়া, ১ চা-চামচ লাল মরিচের গুঁড়া, ১ চা-চামচ হলুদগুঁড়া, ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজবাটা, ১ চা-চামচ রসুনবাটা, লবণ স্বাদমতো, ১ চা-চামচ পাঁচফোড়ন, এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ সরষের তেল।

যমুনা সস
১ চা-চামচ হলুদ সরষেদানা, ২ চা-চামচ তেঁতুলরস (তেঁতুল অল্প পানি দিয়ে ঘন করে গুলে নেবেন), আধা চা-চামচ লাল মরিচের গুঁড়া, ১ চা-চামচ চিনি, লবণ স্বাদমতো, এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ সরষের তেল।

প্রণালি : মাছগুলো ভালো করে ধুয়ে অল্প হলুদ এবং লবণ দিয়ে মেখে গরম তেলে ভেজে নিন। এক পাশে তুলে রাখুন।
এবার গঙ্গা সস বানানোর তেল গরম করে নিন। তাতে পাঁচফোড়ন দিয়ে দিন। পাঁচফোড়ন যখন ফুটতে থাকবে তখন তার মধ্যে একে একে পেঁয়াজবাটা, রসুনবাটা দিয়ে ভালো করে কষে নিন। এবার সরষেবাটা, হলুদের গুঁড়া, মরিচের গুঁড়া, লবণ, কাঁচা মরিচ এবং এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ পানি দিয়ে দিন। পানি ফুটে এলে তার মধ্যে মাছগুলো ছেড়ে দিন। ঝোলটা ঘন হয়ে এলে চুলা বন্ধ করে দিন।

এবার অন্য একটি কড়াইয়ে যমুনা সসের তেল গরম করে নিন। এতে সরষেদানাগুলো ছেড়ে দিন। ফুটে উঠলে একে একে তেঁতুলের রস, মরিচের গুঁড়া, লবণ এবং চিনি দিয়ে একটু নেড়ে এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ পানি দিয়ে দিন। পানি ফুটে ঘন হয়ে তেল ওপরে এলে পরিবেশন করার প্লেটে যমুনা সস ঢেলে দিন। এবার খুব সাবধানে গঙ্গার মাছগুলো হলুদ গ্রেভিসহ তুলে যমুনার গ্রেভির ওপর দিয়ে দিন। এমনভাবে সাজাতে হবে যেন হলুদ অংশটি ওপরে থাকে এবং তেঁতুলের অংশটি নিচে থাকে। ব্যস, হয়ে গেল কই মাছের গঙ্গা যমুনা।

কই মাছের গঙ্গা যমুনা রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৮ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 

কৈ মাছ ভাজি

উপকরণ : কৈ মাছ পরিষ্কার করে ধোয়া ৮টি, রসুন বাটা আধা চা-চামচ, ধনেপাতা গুঁড়া ১ চা-চামচ, কাঁচামরিচ/শুকনা মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া সামান্য, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমত, তেল পরিমাণমত (ভাজার জন্য)।

প্রস্তুত প্রণালী : কড়াইতে তেল দিয়ে গরম হলে একে একে কৈ মাছ ছেড়ে বাদামি বর্ণের করে ভেজে মচমচে কৈ মাছ ভাজা পরিবেশন করুন।

কৈ মাছ ভাজি রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১২ আগস্ট ২০১৩
AMARDESH LOGO

 
এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

Posted by চালু করুন সেপ্টেম্বর 30, 2013 in কই মাছ, মাছ

 

আনারসি কই

উপকরণ : মাছ ৬টি, সরিষা বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ. জিরা বাটা ১ চা চামচ, আনারসের রস ৪ টেবিল চামচ, সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ বাটা আধা চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, হলুদ অল্প।

যেভাবে তৈরি করবেন
১. মাছ ধুয়ে লবণ-হলুদ মাখিয়ে নিন।
২. কড়াইয়ে তেল গরম হলে মাছ হালকা করে ভেজে নিন।
৩. মাছ তুলে তেলে পেঁয়াজ বাটা দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে অন্য সব বাটা মসলা দিয়ে কষান।
৪. অল্প পানি দিয়ে মাছ, লবণ ও হলুদ দিন। মাছ রান্না হয়ে এলে আনারসের রস দিন।
৫. অল্প আঁচে কিছুক্ষণ রেখে নামিয়ে ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

আনারসি কইরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১০ অক্টোবর ২০১১
KALER KANTHA LOGO

 
এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

Posted by চালু করুন সেপ্টেম্বর 30, 2013 in কই মাছ, মাছ

 

কাঁচা টমেটোর কৈ

উপকরণ : কৈ মাছ ৪টি, বড় কাঁচা টমেটো ২টি, মাঝারি পাকা টমেটো ১টি, মটরশুঁটি ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি ১/২ কাপ, রসুন বাটা ১/২ চা চামচ, আদা বাটা ১/৪ চা চামচ, গুঁড়া মরিচ ১/২ চা চামচ, হলুদ ১/২ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ১/৪ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১/২ চা চামচ, তেল ১/২ কাপ, কাঁচা মরিচ ৪-৫টি, ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালি : কৈ মাছ ধুয়ে ২০ মিনিট লবণ মাখিয়ে রাখুন। কড়াইতে তেল দিয়ে পেঁয়াজ হালকা রং করে ভাজুন। পাকা টমেটো কুচি করে তেলে দিয়ে ভাজতে থাকুন। এরপর একে একে সব মসলা দিয়ে ও অল্প অল্প পানি দিয়ে দুই তিনবার কষাতে হবে। এরপর মাছ, কাঁচা টমেটো, মটরশুঁটি ও কাঁচা মরিচ দিয়ে ২০ মিনিট ঢাকনা দিয়ে রান্না করতে হবে। পানি শুকিয়ে তেল উপরে উঠে এলে ধনেপাতা দিয়ে নামাতে হবে।

কাঁচা টমেটোর কৈ

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩
Ittefaq_Logo

 

কৈ মাছের কালিয়া

যা লাগবে : বড় কৈ মাছ ১০টি, টক দই ১ টেবিল চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ, শুকনা মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, আদা বাটা এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, গরম মশলা গুঁড়া এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, ঘি আধা চামচ, সয়াবিন তেল ৪ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, আস্ত কাঁচামরিচ ৪-৫টি।

যেভাবে করবেন : কৈ মাছ ভালো করে ধুয়ে হলুদ, লবণ মাখিয়ে দশ মিনিট রাখুন। কড়াইতে তেল দিন, গরম হলে মাছ দু’পিঠ ভালো করে ভেজে নিন। কড়াইতে তেল দিন। টক দইয়ের সঙ্গে গরম মশলা বাদে সব মশলা মিশিয়ে কড়াইতে দিন। মশলা কষানোর পর পানি দিন, ফুটে উঠলে মাছ, কাঁচামরিচ ছেড়ে দিন। ঝোল ঘন হলে ঘি, গরম মশলা দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২০ নভেম্বর ২০১২

 
 
%d bloggers like this: