RSS

Category Archives: মাংসের নানা পদ

ওলকপি মাংস

উপকরণ : ওলকপি ৫০০ গ্রাম, মাংস ২৫০ গ্রাম, সরিষা বাটা আধা কাপ, ধনেপাতা কুচি ১ কাপ, আদা বাটা দুই চা চামচ, রসুন বাটা ২ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা আধা কাপ, মরিচের গুঁড়ো ১ চা চামচ। কাঁচামরিচ ৩-৪টা, তেল এক কাপ, হলুদ সিকি চামচ, লবণ স্বাদমতো, পানি সামান্য।

প্রণালি : ওলকপি ছোট ছোট করে কেটে নিন। মাংস ছোট আকারে কেটে নিন, তারপর ওলকপিগুলো সিকি চা চামচ লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। পাত্রে তেল গরম করে ওপরের সব উপকরণ দিয়ে ভেজে নিন। মাংস দিয়ে নেড়ে সামান্য পানি দিয়ে ঢেকে দিন। পানি কমে গেলে ওলকপি দিয়ে নেড়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রাখুন এবং গরম গরম পরিবেশন করুন।

ওলকপি মাংস

রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৩ জানুয়ারি ২০১৫
Manob_Kantha_logo

Advertisements
 

চাপ ভুনা

উপকরণ : টুকরা করা চাপের মাংস ১ কেজি, টক দই পৌনে এক কাপ, পেঁয়াজ মিহি কুচি ১ কাপ, গোটা এলাচ ৪টি, দারুচিনি ৪ টুকরা, লবঙ্গ ১টি, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ২ চা-চামচ, ধনে গুঁড়া ২ চা-চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চা-চামচ, লাল মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, জায়ফল গুঁড়া সিকি চা-চামচ, জয়ত্রী গুঁড়া এক চিমটি, সরিষা গুঁড়া আধা চা-চামচ, গরম মশলা গুঁড়া আধা চা-চামচ, পেঁপে বাটা ২ টেবিল চামচ, চিনি ১ চা-চামচ, কাঁচা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, টমেটো কেচাপ ২ টেবিল চামচ, সয়াবিন তেল আধা কাপ।

প্রণালি : টুকরো করা চাপের মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে পাটায় থেঁতলে নিয়ে একটি পাত্রে রাখুন। অন্য বাটিতে পেঁয়াজ কুচি, লেবুর রস, কেচাপ, তেল, চিনি এবং গোটা গরমমসলা বাদে অন্যান্য উপকরণ একত্রে মিশিয়ে মসৃণ করে ফেটে নিন। চাপের মাংসগুলো এই মিশ্রণে মেখে ৪-৫ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিন। এক থেকে দেড় কাপ পানি দিয়ে মাঝারি আঁচে মাংস ঢেকে সেদ্ধ করে নিন। একটি কড়াই বা ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে মাংসগুলো লালচে করে ভেজে উঠিয়ে নিন। এবার একই তেলে গোটা গরমমসলার ফোঁড়ন দিয়ে পেঁয়াজ সোনালি করে ভেজে তাতে ভাজা মাংসগুলো দিয়ে নাড়ুন। আঁচ কমিয়ে টমেটো কেচাপ এবং চিনি দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে লেবুর রস দিয়ে দিন। কড়াই বা প্যান চারপাশ থেকে ঝাঁকিয়ে মাংসগুলো কেচাপ এবং লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। আঁচ কমিয়ে ১০ মিনিট ঢেকে রাখুন। চুলা বন্ধ করে পাঁচ মিনিট দমে রাখুন। পাত্রে সাজিয়ে পরোটা, নান বা বাকরখানি এবং রায়তার সঙ্গে পরিবেশন করুন।

চাপ ভুনা রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১১ নভেম্বর ২০১৪
PALO

 

হাঁসের মেথি কালিয়া

যা লাগবে : হাঁসের মাংস দেড় কেজি, আদা বাটা আড়াই টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা আধা কাপ, জিরা বাটা দেড় চা চামচ, ধনে বাটা আধা টেবিল চামচ, হলুদ বাটা ১ চা চামচ, মরিচ বাটা ২ চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, গোল মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, আস্ত মেথি ১ চা চামচ, মেথি গুঁড়া কোয়ার্টার চা চামচ, গরম মশলা গুঁড়া ১ চা চামচ, এলাচ, দারুচিনি ৪-৫টি করে, তেজপাতা ২টি, লবণ স্বাদমতো, তেল আধা কাপ, রসুন কোয়া ১ টেবিল চামচ (থেঁতলানো)।

যেভাবে করবেন : হাঁস কেটে বেছে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। গুঁড়া ও আস্ত মেথি, রসুন, পেঁয়াজ কুচি ও তেল ছাড়া হাঁসের মাংস সব উপকরণ দিয়ে খুব ভালোভাবে মেখে ম্যারিনেড করে রাখুন ২ ঘণ্টা। ম্যারিনেড করা হাঁসের মাংস ঢেকে চুলায় দিয়ে ৫ মিনিট বেশি আঁচে রান্না করে পরে মৃদু আঁচে রাঁধুন। প্রয়োজনে মাংসে গরম পানি দিন। মাংস সিদ্ধ হয়ে মাখা মাখা থেকে একটু বেশি ঝোল থাকতে নামিয়ে নিন। একটি কড়াইতে তেল দিয়ে গরম হলে আস্ত মেথির ফোড়ন দিন। মেথি ভাজা সুগন্ধ বের হলে পেঁয়াজ কুচি ও থেঁতলানো রসুন দিন। এগুলো ভেজে মাংস দিয়ে মেথি গুঁড়া দিয়ে ভালো করে নেড়ে আধা কাপ গরম পানি দিয়ে ঢেকে দিন। খুব কম আঁচে দমে রাখুন ১৫-২০ মিনিট। নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন পোলাও, খিচুড়ি, বা গরম ভাতের সঙ্গে। পরোটার সঙ্গেও খেতে ভালো লাগবে।

হাঁসের মেথি কালিয়ারেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৬ জানুয়ারী ২০১৫
Jugantor_logo

 

কিমার দম বিরিয়ানি

উপকরণ : খাসি বা গরুর পেছনের রানের মাংস (চর্বি এবং হাড়বিহীন) ১ কেজি, বাসমতি চাল ৫০০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, টক দই আধা কাপ, লবণ আধা টেবিল চামচের একটু বেশি, চিনি ১ চা-চামচ, ঘি ১ কাপ, ঘিয়ে ভেজে নেওয়া বাদাম, পেস্তা, কাজু ও কিশমিশ সিকি কাপ করে, জিরা গুঁড়া আধা টেবিল চামচ, শাহি বিরিয়ানি মসলা আধা টেবিল চামচ, আলু বোখারা ৮টি, চৌকো করে কাটা আলু দেড় কাপ, ক্রিম ৭ টেবিল চামচ, গোলাপ জল ১ টেবিল চামচ, কেওড়া জল ১ টেবিল চামচ, জাফরান সিকি চামচ, জর্দার রং অথবা হলুদ ফুড কালার এক চিমটি।

প্রণালি : মাংস পাতলা টুকরো করে কেটে ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে পাটায় থেঁতলে কিমা করে নিন। ১ চা-চামচ লবণ ও ১ কাপ পানি দিয়ে কিমা সেদ্ধ করে নিন। আলু ধুয়ে ফুডকালার বা জর্দার রং ও সামান্য লবণ মেখে ১ টেবিল চামচ ঘি এবং পরিমাণমতো পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। গোলাপজল এবং কেওড়া জলে জাফরান ভিজিয়ে রাখুন। একটি বড় বাটিতে আদা-রসুন বাটা, জিরা গুঁড়া, ১ চা-চামচ লবণ, টক দই, অর্ধেক জাফরান, চিনি এবং শাহি বিরিয়ানি মাসালা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে ফেটে নিয়ে নিন। এটি কিমার সঙ্গে ভালো করে মেখে ৩-৪ ঘণ্টা রেখে দিন।
চাল ধুয়ে ৩০ মিনিট পানিতে ভিজিয়ে রেখে আলতোভাবে আরেক ধোয়া দিয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। চুলায় ৪ কাপ ফোটানো পানিতে আধা টেবিল চামচ লবণ মিশিয়ে চাল দিয়ে নাড়ুন। চাল আধা সেদ্ধ হলে ঝাঁঝরিতে ঢেলে পানি ঝরিয়ে নিন। এখান থেকে ১ কাপ অথবা দেড় কাপ পানি আলাদা করে ঢেকে রেখে নিন। অন্য পাত্রে গরম ঘিয়ে পেঁয়াজ সোনালি করে ভেজে উঠিয়ে রাখুন।

এবার যেই হাঁড়িতে বিরিয়ানি রাঁধবেন, তাতে সিকি কাপ ঘি মেখে প্রথমে আধা কাপ আলু, অর্ধেক কিমার মিশ্রণ মিশিয়ে ওপরে অর্ধেক ভাত বিছিয়ে দিন। এবার ভাতের ওপরে ৪টি আলুবোখারাসহ বেরেস্তা ছিটিয়ে দিন। তারপর ৩ টেবিল চামচ ক্রিম এবং অর্ধেক পরিমাণ ভাজা কাজু, কিশমিশ, বাদাম ও পেস্তা দিয়ে দিন। তার ওপর আবার কিমার মিশ্রণ, আলু ও বাকি সব উপকরণ দিয়ে আরেক স্তর সাজান। এবার পোলাওয়ের পানিটুকু চারদিক থেকে দিয়ে দিন। আরেকটু লবণ এই পানিতে মিশিয়ে নিতে পারেন। সবশেষে বাকি গোলাপ ও কেওড়া জলে ভেজানো জাফরান ওপর থেকে ছিটিয়ে দিন। তারপর ঢেকে কড়া আঁচে চুলায় প্রথমে ১০ মিনিট রান্না করুন। ঢাকনার ওপরে ভারী কিছু চাপা দিয়ে রাখুন যেন ভেতরের বাষ্প বের না হয়। ১০ মিনিট কড়া আঁচে বিরিয়ানি রান্না করার পর আঁচ কমিয়ে ১৫ মিনিট চুলায় রাখুন। চুলা বন্ধ করে ১০-১৫ মিনিট দমে রেখে নামিয়ে রাখুন। এবার ১০ মিনিট পর ঢাকনা খুলে বড় হাতল দিয়ে চাল-মাংস মিশিয়ে দিন। পাত্রে বেড়ে কাবাব, রায়তা, কাটলেট ও বোরহানির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

বিরিয়ানি শাহি মশলা : ছোট এলাচ, কালো এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ, শাহি জিরা, সাদা গোল মরিচ, শুকনা মরিচ, জায়ফল, জয়ত্রী পরিমাণমতো নিয়ে আলাদা করে টেলে ঠান্ডা হলে একত্রে পাটায় গুঁড়া করে নিন।

কিমার দম বিরিয়ানি রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১১ নভেম্বর ২০১৪
PALO

 

বিফ কোপ্তা কারী

উপকরণ : গরুর মাংসের কিমা আধা কেজি, আদা-রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ, টক দই ২ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, ভিনেগার ১ টেবিল চামচ, পাউরুটি টুকরা ২টি, ডিম ১টি, তেল, লবণ স্বাদমতো

পদ্ধতি : একটি পাত্রে গরুর মাংসের কিমা নিয়ে এতে আদা-রসুন বাটা, সামান্য টক দই, লবণ, ১ টেবিল চামচ হলুদ, ১ টেবিল চামচ মরিচ, ভিনেগার দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে মেরিনেট করে রাখুন ২-৩ ঘণ্টা। এরপর এতে পেঁয়াজ কুচি, পুদিনা পাতা কুচি (ইচ্ছা), মরিচ কুচি, পানিতে ভেজানো পাউরুটি দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন। একটি প্যানে ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেল গরম করে নিন। এবার কিমা দিয়ে ছোট ছোট বল করে নিয়ে ডিমে চুবিয়ে তেলে লাল করে ভেজে নিন। এরপর অপর একটি কড়াইতে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভেজে নিন। তারপর বাকি সব মসলা দিয়ে কষিয়ে নিন। এবং কোপ্তা বলগুলো দিয়ে নেড়ে নিন ভালো করে। পরিমাণ মতো পানি দিয়ে মৃদু আঁচে রান্না করতে থাকুন। ঝোল ঘন করার জন্য ২ টেবিল চামচ কর্ণফ্লাওয়ার গুলিয়ে নিয়ে দিয়ে ঝোল ঘন করে নামিয়ে নিন। একটি সার্ভিং ডিসে ঢেলে ওপরে বাদাম কিসমিশ কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন। চাইলে মুরগির মাংস দিয়ে কোপ্তা তৈরি করতে পারেন।

বিফ কোপ্তা কারীরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪
samoyiki-new

 

কাটা মসলায় মাংস

উপকরণ : গরু বা খাসির মাংস ১ কেজি, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, রসুন কুঁচি ১ টেবিল চামচ, আদা মিহি কুচি দেড় টেবিল চামচ. বেরেস্তা আধা কাপ, শুকনা মরিচ (৪ টুকরা করে কাটা) ৪টি, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, টকদই আধা কাপ, গরমমসলার গুঁড়া ১ চা-চামচ, তেজপাতা ২টি, দারুচিনি ৪ টুকরা, এলাচি ৪টি, লবঙ্গ ৪টি, আস্ত রসুন কোয়া আধা কাপ, আস্ত পেঁয়াজ আধা কাপ, লবণ স্বাদমতো, সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ৫-৬টি।

প্রণালি : মাংসের চর্বি ও পর্দা বাদ দিয়ে টুকরা করে ধুয়ে ফুটন্ত গরম পানিতে লবণ ও হলুদ দিয়ে কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে পানি ঝরিয়ে রাখতে হবে। তেল, পেঁয়াজ, রসুন, আদা কুচি, শুকনা মরিচ, গরমমসলা, তেজপাতা, লবণ ও টকদই দিয়ে মাখিয়ে পরিমাণমতো গরম পানি দিয়ে মাংস রান্না করতে হবে। মাংস সেদ্ধ হয়ে ঝোল কমে এলে আস্ত পেঁয়াজ-রসুন, গরমমসলার গুঁড়া, গোলমরিচ গুঁড়া, বেরেস্তা ও আস্ত কাঁচা মরিচ দিয়ে অল্প আঁচে ৩০ মিনিট দমে রাখতে হবে।

কাটা মসলায় মাংসরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ২৮ অক্টোবর ২০১৪
PALO

 

বিফ শিক কাবাব

উপকরণ : হাড্ডি ছাড়া গরুর মাংস কিউব করে নিতে হবে ১ কেজি, নারিকেল পাউডার ২ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, জিরা গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, শুকনা মেথিপাতা ১ টেবিল চামচ, গরুর চর্বি ২০০ গ্রাম, পুদিনা পাতা ৫০ গ্রাম, ধনেপাতা ৫০ গ্রাম, কাঁচামরিচ ৫টি, আদা-রসুন আস্ত ২০ গ্রাম।

প্রস্তুত প্রণালি : সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে কিমা করে নিতে হবে। তারপর শিকে ভরে কয়লার চুলায় সেঁকতে হবে। বারবার উল্টিয়ে নিতে হবে।

বিফ শিক কাবাব রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১ অক্টোবর ২০১৪1SAMAKAL=LOGO

 
 
%d bloggers like this: