RSS

Category Archives: পূজার নিমন্ত্রণে

কড়াই মাটনক্র

উপকরণ : খাসির মাংস ২০০ গ্রাম, পেঁয়াজ বাটা এক টেবিল চামচ, রসুন বাটা এক টেবিল চামচ, আদা বাটা এক টেবিল চামচ, জয়ফল-জয়ত্রী বাটা আধা চা চামচ, গোটা জিরা এক চা চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, মরিচ গুঁড়া এক চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি দুই টেবিল চামচ, আদা কুচি এক চা চামচ, টমেটো কুচি এক কাপ, চীনাবাদাম বাটা দুই চা চামচ, ধনেপাতা কুচি সামান্য, কাঁচা মরিচ কুচি পরিমাণ মতো, তেল পরিমাণ মতো ও লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে খাসির মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। এবার একটি কড়াইয়ে খাসির মাংসের সঙ্গে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, আদা বাটা, জয়ফল-জয়ত্রী বাটা ভালোভাবে মিশিয়ে সিদ্ধ বসিয়ে দিন। মোটামুটি সিদ্ধ হলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। এবার একটি কড়াইয়ে তেল দিয়ে গোটা জিরা ফোড়ন দিন। এরপর হলুদ, মরিচ, পেঁয়াজ কুচি, আদা কুচি, লবণ ও টমেটো কুচি দিয়ে কিছুক্ষণ ভাজুন। পরে চীনাবাদাম বাটা দিয়ে সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে সিদ্ধ খাসির মাংসগুলো দিয়ে দিন। তারপর ভাজতে থাকুন। ধনেপাতা কুচি, কাঁচা মরিচ কুচি ছড়িয়ে ভাজা ভাজা হয়ে এলে চুলা থেকে নামিয়ে পোলাওয়ের সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন দারুণ সুস্বাদু কড়াই মাটন।

কড়াই মাটনক্ররেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬
samakal_beta_logo

Advertisements
 

কেরালা মাটন কারি

উপকরণ : খাসির মাংস ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ-রসুন কুচি এক কাপ, এলাচ চার-পাঁচটি, বড় এলাচ দুটি, দারুচিনি তিন-চারটি, কালো গোলমরিচ আধা চা চামচ, তেজপাতা চারটি, লবঙ্গ দু-তিনটি, আদা বাটা দুই টেবিল চামচ, চীনাবাদাম বাটা দুই টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া দুই টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া দুই টেবিল চামচ, তেল পরিমাণমতো, গরম মসলা গুঁড়া এক চা চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ, লেবুর রস সামান্য এবং লবণ পরিমাণমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে খাসির মাংস ছোট টুকরা করে কেটে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ-রসুন কুচি হালকা বাদামি হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। এবার এতে একে একে এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ, কালো গোলমরিচ, তেজপাতা ও খাসির মাংস দিয়ে ভাজুন। এখন এতে আদা বাটা, চীনাবাদাম বাটা, মরিচ ও হলুদ দিয়ে সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন। ছয় কাপ পানি দিয়ে নেড়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। ২০ মিনিট পর ঢাকনা সরিয়ে জিরা গুঁড়া, গরম মসলা গুঁড়া দিয়ে দিন। সামান্য লেবুর রস দিয়ে নাড়ুন। সিদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে এলে দুই টেবিল চামচ পরিমাণে তেল ছড়িয়ে চুলায় রেখে নাড়তে থাকুন, যতক্ষণ পর্যন্ত মাখামাখা না হয়। এবার চুলা থেকে নামিয়ে পাত্রে ঢেলে গরম গরম পরিবেশন করুন দারুণ সুস্বাদু কেরালা মাটন কারি।

কেরালা মাটন কারিরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬
samakal_beta_logo

 

মাটন রোগান জোশ

উপকরণ : খাসির মাংস ২৫০ গ্রাম, কাশ্মীরি রেড চিলি পাউডার তিন টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপ, তেল পরিমাণমতো, এলাচ চার-পাঁচটি, বড় এলাচ দুটি, দারুচিনি দুই-তিনটি, তেজপাতা দুটি, চিনি আধা চা চামচ, আদা বাটা দুই টেবিল চামচ, হিং এক চা চামচ, জাফরান এক চিমটি ও লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে খাসির মাংস ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার চুলায় কড়াই দিয়ে তাতে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি, রসুন কুচি দিয়ে বেরেস্তা ভেজে নিন। এতে খাসির মাংস দিয়ে হালকা ভাজা ভাজা করুন। ভাজার সময় লবণ, এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা, সামান্য চিনি ও আদা বাটা দিয়ে দিন। ভাজা হয়ে এলে এতে পানিতে গোলানো কাশ্মীরি রেড চিলি পাউডার দিয়ে দিন। ছয় কাপ পানি দিয়ে বলক ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর এতে হিং ও জাফরান দিয়ে ঢাকনা দিয়ে অল্প আঁচে জাল দিন। সিদ্ধ হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে পেটে ঢেলে গরম গরম পরিবেশন করুন দারুণ সুস্বাদু মাটন রোগান জোশ।

মাটন রোগান জোশরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬
samakal_beta_logo

 

নবরত্ন তরকারি

উপকরণ : বরবটি ২৫০ গ্রাম, আলু ও গাজর ২৫০ গ্রাম, ফুলকপি ২টি, ক্যাপসিকাম বড় ১টি, টমেটো ২টি, পেঁয়াজবাটা ১ কাপ, কাজু বাদামবাটা ২ টেবিল চামচ, এলাচি ৫-৬টি, দারুচিনি ৩টি, তেজপাতা ২টি, ধনেপাতা পরিমাণ মতো, পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, পেঁয়াজ ৪ টুকরা করে নিতে হবে আধা কাপ, মাখন ৫০ গ্রাম, রসুন কুচি ১ চা-চামচ, সাদা তেল ৩ টেবিল চামচ, হলুদ-মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, আস্ত কাঁচা মরিচ ৩-৪টি, লবণ ও চিনি স্বাদ অনুসারে, আদা ও রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ এবং ফ্রেশ ক্রিম ১ কৌটা।

প্রণালি : সবজিগুলো চৌকা করে কেটে আধা সেদ্ধ করে ঠান্ডা পানিতে রাখতে হবে কিছুক্ষণ। তেলের মধ্যে এলাচি ও দারুচিনি ফোড়ন দিতে হবে। ফোড়ন থেকে সুগন্ধ বেরোলে পেঁয়াজবাটা কষাতে হবে। তারপর একে একে আদা, রসুন, হলুদ এবং মরিচের গুঁড়া দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষাতে হবে। কাজু বাদামবাটা দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ মৃদু আঁচে নাড়তে হবে। অনবরত নাড়তে হবে যেন লেগে না যায়। তেল ছাড়লে নামিয়ে ফেলতে হবে। কড়াইতে মাখন দিয়ে রসুন কুচি ফোড়ন দিতে হবে। রসুন বাদামি রং হলে সেদ্ধ করে রাখা সবজিগুলো দিয়ে ভালো করে নাড়তে হবে। এরপর প্রস্তুতকৃত মসলা সেদ্ধ সবজিতে দিতে হবে। টুকরা করে কাটা টমেটো, ক্যাপসিকাম ও পেঁয়াজ দিতে হবে এবং নাড়াচাড়া করতে হবে। সবজি দেখে লবণ দিয়ে তারপর কাঁচা মরিচ ও চিনি দিতে হবে। ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে ধনেপাতা কুচি আর পেঁয়াজ বেরেস্তা দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

নবরত্ন তরকারিরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৩ অক্টোবর ২০১৫
PALO

 

নারকেল দুধে পটোলের দম

উপকরণ : পটোল আদা কেজি (ছিলে সেদ্ধ করে নেওয়া), পেঁয়াজবাটা ১ টেবিল চামচ, আদাবাটা ১ চা–চামচ, ছোট এলাচি ৩/৪ টি, ঘি ও সরষের তেল একসঙ্গে ৪ টেবিল চামচ, নারকেলের দুধ দেড় কাপ, হলুদ আধা চা–চামচ, শুকনো মরিচের গুঁড়া আদা চা–চামচ, চিনি সিকি চা–চামচ, কাঁচা মরিচ ৭/৮টি ও লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি : কড়াইতে তেল ও ঘি একসঙ্গে দিতে হবে। এলাচি থেঁতো করে ফোড়ন দিতে হবে। পেঁয়াজবাটা দিয়ে নাড়াচাড়া করতে হবে। পেঁয়াজ বাদামি রং হলে হলুদ ও শুকনো মরিচের গুঁড়া দিয়ে কষাতে হবে। তেল ছাড়লে পটোলগুলো দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষাতে হবে। তারপরে নারকেলের দুধ দিয়ে মৃদু আঁচে ঢেকে রাখতে হবে। পটোল সেদ্ধ হয়ে মাখা মাখা হলে কাঁচা মরিচ দিতে হবে। সবশেষে ঘি এবং চিনি দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

নারকেল দুধে পটোলের দমরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৩ অক্টোবর ২০১৫
PALO

 

নারকেল দিয়ে ছোলার ডাল

উপকরণ : ছোলার ডাল আধা কেজি, আদা বাটা ১ চা-চামচ, নারকেল কোরানো ১ কাপ, তেজপাতা ২-৩টি, ঘি ২ টেবিল চামচ, আস্ত জিরা ১ চা-চামচ, শুকনো মরিচ ৩-৪টি, সাদা তেল ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, দারুচিনি ৩-৪টি, এলাচি ৫-৬টি, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি : ডালের মধ্যে আদা বাটা, তেজপাতা, লবণ ও হলুদ দিয়ে সেদ্ধ করতে হবে। যেন গলে না যায়। অন্য কড়াইয়ে তেলে আস্ত জিরা, শুকনো মরিচ ও তেজপাতা ফোড়ন দিয়ে সুগন্ধ বেরোলে ডাল দিতে হবে। তারপর ঘিয়ে ভাজা নারকেল দিতে হবে। সবশেষে ঘি দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

নারকেল দিয়ে ছোলার ডালরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৩ অক্টোবর ২০১৫
PALO

 

নারিকেলের নাড়ূ

উপকরণ : নারিকেল ১টি, চিনি ১ টেবিল চামচ, ঘি ১ চা চামচ, তারিখ শন ১ কাপ।

প্রস্তুত প্রণালি : নারিকেলের কোরা পাশে রেখে গ্যাসের চুলায় একটি বড় তলার কড়াই চাপান। তারপর কড়াইয়ে নারিকেল কোরা ঢালুন এবং এক টেবিল চামচ চিনি ও তারিখ ফ্লেক্স একসঙ্গে হালকা আঁচে নাড়ূন। তারিখ ফ্লেক্স না গলে যাওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন। এবার কড়াইয়ে থাকা নারিকেল আঠালো হয়ে আসা পর্যন্ত এই সময়টা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। মিশ্রণটি নামিয়ে হাতের তালুতে ঘুরিয়ে ছোট ছোট মার্বেলের আকার দিন। মার্বেল বানানোর সময় আপনার হাতে একটু ঘি মেখে নিন। তারপর এয়ার টাইট পাত্রে সংরক্ষণ করুন সুস্বাদু নারিকেলের নাড়ূ।

নারিকেলের নাড়ূরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১৪ অক্টোবর ২০১৫
1SAMAKAL=LOGO

 
 
%d bloggers like this: